Home » উত্তর-পূর্ব ভারত » আলফা (স্বা)-এর কবল থেকে শীঘ্রই মুক্ত করা হবে অরুণাভকে, দাবি শীর্ষ পুলিশকর্তার

আলফা (স্বা)-এর কবল থেকে শীঘ্রই মুক্ত করা হবে অরুণাভকে, দাবি শীর্ষ পুলিশকর্তার

গুয়াহাটি: খুব শীঘ্রই অপহরণকারী আলফা (স্বাধীন)-এর খপ্পর থেকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হবে অরুণাভ ফুকনকে। দৃঢ়তার সঙ্গে জানিয়েছেন রাজ্য পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের অতিরিক্ত মহানির্দেশক (এডিজিপি) পল্লব ভট্টাচার্য। বুধবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে এ প্রসঙ্গে এক জিজ্ঞাসার জবাবে এই আশ্বাস দিয়ে এডিজিপি ভট্টাচার্য বলেন, তাঁদের সন্দেহ সত্যে পরিণত হয়েছে। সে অনুসারে গোয়েন্দা তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, অরুণাভের মুক্তির বিনিময়ে তাঁর বাবা দিলীপ ফুকনের কাছে দুই কোটি টাকার দাবি যে ব্যক্তি করেছিল তাকে শনাক্ত করা হয়েছে। সে আলফা-র নয়ন মেধি। সেদিন অরুণাভকে অপহরণ কাণ্ড সংঘটিত হয়েছিল রূপম অসম (ছদ্মনাম)-এর নেতৃত্বে। এ সব যাবতীয় তথ্য পুলিশের হাতে এসে পড়েছে বলে দাবি করেছেন এডিজিপি পল্লব ভট্টাচার্য। তাদের অবস্থান সম্পর্কেও ইতিমধ্যে পুলিশের খবর এসেছে বলে জানান তিনি।

পল্লব ভট্টাচাৰ্য আরও বলেন, আলফা (স্বাধীন)-এর সঙ্গে আলোচনা প্ৰক্ৰিয়া চলছে। অক্ষত অবস্থায় অরুণাভকে ছেড়ে দিতে অন্যান্য সংগঠনের পদাধিকারীরা মধ্যস্থতা করছেন।
উল্লেখ্য, তিনসুকিয়া জেলার জাগুন থেকে অপহৃত বিজেপি কৰ্মী তথা প্ৰতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী দিলীপ ফুকনের ছেলে অরুণাভকে অপহরণের দায় ইতিমধ্যে দুদিন আগে স্বীকার করেছে আলফা (স্বাধীন)। সোমবার রাতে অজ্ঞাত ব্যক্তির ফোনে অরুণাভের বাবা দিলীপ ফুকনের কাছে তাঁর ছেলেকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পেতে হলে দু-কোটি টাকা আলফা (স্বাধীন)-কে দিতে হবে বলে মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছিল।

শুক্রবার বিকেলে জাগুনের জয়রামপুর থানার পুরনো খাণ্ডু গ্রাম এলাকা থেকে মাহিন্দ্র থার গাড়ি-সহ ২৪ বছর বয়সি অরুণাভকে অপহরণ করেছিল সন্দেহভাজন জঙ্গি দল। অরুণাভ ফুকনকে আক্ষত অবস্থায় উদ্ধার অভিযানে নেমে যৌথবাহিনী পরের দিন অরুণাচল প্রদেশ-অসম সীমান্তের গভীর জঙ্গলে পরিত্যক্ত তাঁর ব্যবহৃত মহিন্দ্র জিপ উদ্ধার করা হয়েছিল রবিবার। তবে আলফা ক্যাডার সন্দেহে দুদিন আগে দুই যুবককে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তাদের পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।
এডিজিপি পল্লব ভট্টাচার্য বলেছেন, সাম্প্রতিককালে টাকার জন্য মুক্তিপণ চেয়ে অপহরণ অভিযান চালিয়েছে আলফা (স্বাধীন)। এরা টাকা সংগ্রহে মরিয়া হয়ে উঠেছে। তবে অপহৃতকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করতে পুলিশ প্রশাসন যে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখছে সে কথাও দৃঢ়তার সঙ্গে জানান তিনি। বলেছেন, অপহৃতকে উদ্ধার করতে অরুণাচল প্রদেশ পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর সাহায্য নেওয়া হয়েছে। অভিযান জোরদার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, পেশায় পাথর ব্যবসায়ী দিলীপ ফুকনের কয়েকটি স্টোন ক্র্যাশার রয়েছে। পুরনো খাণ্ডু এলাকা থেকে পাথর কিনে তাঁর ক্র্যাশারে সেগুলি ভেঙে পার্শ্ববর্তী অরুণাচল প্রদেশে সরবরাহ করেন তিনি। পড়াশুনার পাশাপাশি বাবার ব্যবসার দেখশোনও করে ছেলে অরুণাভ। সেই সুবাদে অরুণাচল প্রদেশে যাওয়ার পথে জাগুন-জয়রাম রোড থেকে শুক্রবার তাঁকে অপহরণ করা হয়েছিল।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ত্ৰিপুরায় অমিত শাহর জনসমাবেশ সফল করার প্ৰস্তুতি বিজেপি-র

আগরতলা: আগামী ৭ জানুয়ারি ত্ৰিপুরার আমবাসা ও উদয়পুরে বিজেপি-র সৰ্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর নিৰ্বাচনী জনসমাবেশকে ...