Home » বিদেশ » মাঝে কাঁচের দেওয়াল : কুলভূষণের সঙ্গে দেখা হল মা ও স্ত্রীর, কথা ইন্টারকমে

মাঝে কাঁচের দেওয়াল : কুলভূষণের সঙ্গে দেখা হল মা ও স্ত্রীর, কথা ইন্টারকমে

ইসলামাবাদ: অবশেষে পাক জলে বন্দি প্রাক্তন ভারতীয় নৌ কমান্ডার কুলভূষণ যাদবের সঙ্গে দেখা করলেন তাঁর মা ও স্ত্রী | সোমবার পাক বিদেশমন্ত্রকের আগা শাহী ব্লকে কাঁচের দেওয়ালের ভিতর থেকে দেখা করতে দেওয়া হয় কুলভূষণকে। প্রায় ৩০ মিনিট ইন্টারকমে কথা হয় তাঁদের। এই সাক্ষতপর্বে দফতরের আশপাশে মোতায়েন ছিল শার্প শ্যুটার |

সোমবার ইসলামাবাদে পাক বিদেশমন্ত্রকে কুলভূষণের সঙ্গে দেখা মা ও স্ত্রীর | পাক সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে কাঁচের দেওয়ালের ভিতর থেকে দেখা করতে দেওয়া হয় কুলভূষণকে। পাক বিদেশমন্ত্রকের আগা শাহী ব্লকে প্রায় ৩০ মিনিট ইন্টারকমে কথা হয় তাঁদের। পুরো কথোপকথনের ভিডিও করা হয়। এই সাক্ষতপর্বে দফতরের আশপাশে মোতায়েন ছিল শার্প শ্যুটার |
গত বছরের ৩ মার্চ গ্রেফতার হওয়ার পর এই প্রথম পরিবারের সদস্যদের মুখোমুখি হলেন তিনি। ভারতের ডেপুটি হাই কমিশনার জেপিসিং-কে সঙ্গে নিয়ে কুলভূষণের সঙ্গে দেখা করতে যান তাঁর স্ত্রী চেতানুকুল যাদব ও মা অবন্তী যাদব । পাক টিভি চ্যানেলের ফুটেজে দেখা গিয়েছে, পাক জেলে বন্দি কুলভূষণের মা ও স্ত্রী বিদেশমন্ত্রকের মূল ভবনে ঢুকছেন, তারপর সেখানকার দরজা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। পাকিস্তানের সময় দুপুর ১টা ৩৫ মিনিট নাগাদ তাঁদের সাক্ষতপর্ব শুরু হয়। পাক সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে কাঁচের দেওয়ালের ভিতর থেকে দেখা করতে দেওয়া হয় কুলভূষণকে। পাক বিদেশমন্ত্রকের আগা শাহী ব্লকে প্রায় ৩০ মিনিট ইন্টারকমে কথা হয় তাঁদের।

পাক বিদেশমন্ত্রক তাঁদের মন্ত্রকের ভিতরে বসে থাকার ছবি ট্যুইট করে লিখেছে, আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিই, তার মর্যাদা দিই। যদিও এই কুলভূষণের সঙ্গ দেখা করার বিষয়টিকে ‘কনস্যুলার অ্যাকসেস বলতে নারাজ পাকিস্তান। তাদের দাবি, পাকিস্তানের ‘জাতির জনক’ মহম্মদ আলি জিন্নার জন্মদিন উপলক্ষে মানবিকতার খাতিরে তাঁর সঙ্গে দেখা করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে।
জানা গেছে আজই বেসরকারি বিমানে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি হয়ে ইসলামাবাদ পৌঁছন কুলভূষণ যাদবের মা ও স্ত্রী । তাঁরা ইসলামাবাদে পৌঁছে প্রথমে যান ভারতীয় হাই কমিশনে। সেখান থেকে আধ ঘন্টা বাদে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় পাক বিদেশমন্ত্রকে। তাঁরা পৌঁছনোর আগে সেখানে নিয়ে আসা হয় কুলভূষণকে।

এই সাক্ষাত্কার উপলক্ষ্যে কড়া পাহারার ব্যবস্থা করা হয় পাক বিদেশমন্ত্রকের কার্যালয়ে। পাক প্রশাসন জানিয়েছে, বিদেশমন্ত্রক ও তার আশপাশের বাড়িগুলিতে শার্প শ্যুটার মোতায়েন করা হয়েছে যে কোনও অবাঞ্ছিত ঘটনার মোকাবিলায়। রয়েছে পাক পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীও। যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে কনস্টিটিউশন অ্যাভিনিউয়ের দিকে যাওয়ার সব রাস্তায়। যাঁরা প্রয়োজনে বিদেশমন্ত্রকে যাচ্ছেন, বিশেষ পাস নিতে হচ্ছে তাঁদের।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩ মার্চ গ্রেফতার করা হয়েছিল কুলভূষণকে। চরবৃত্তির অভিযোগে ভারতের প্রাক্তন এই নৌসেনা আধিকারিককে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শুনিয়েছে পাকিস্তান। এই নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জের আইনসভাতেও বিচার হয়েছে। তাতে কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ডের সাজা অনৈতিক বলে জানিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। কিন্তু পাকিস্তান নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড়। তারপর থেকে পাকিস্তানের কারাগারেই বন্দী রয়েছেন তিনি। গ্রেফতারের পর এই প্রথম নিজের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন তিনি|

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

তিন তালাক বিরোধী বিল নিয়ে সরব মমতা বন্দোপাধ্যায়

আমোদপুর: নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাকযুদ্ধ অব্যাহত| বিমুদ্রাকরণকে হাতিয়ার করে এতদিন তুলোধনা ...