Home » পশ্চিমবঙ্গ » কুড়ি টাকার জন্য ভাইপোকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ কাকার বিরুদ্ধে

কুড়ি টাকার জন্য ভাইপোকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ কাকার বিরুদ্ধে

বারুইপুর: বাকরুদ্ধকর ঘটনা দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে| মাত্র কুড়ি টাকার জন্য ভাইপোকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল কাকার বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় বারুইপুর থানার অন্তর্গত রামনগর এলাকার হরিজন মাস্টার পাড়ায়। নিহতের নাম সাহিদ আলি মন্ডল(৩২)। ঘটনায় অভিযুক্ত কাকার নাম হাবিবুল্লা মণ্ডল ও তার অনুগামীরা। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক। ঘটনার প্রতিবাদে অভিযুক্তদের বাড়ি ভাঙচুর করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তরা গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভে ফুঁসছেন এলাকার মানুষজন। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে এলাকায় দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন এলাকাবাসী। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা রয়েছে।

অভিযোগ গত ২২ ডিসেম্বর ব্যাঙ্কে টাকা রাখা নিয়ে গণ্ডগোল বাঁধে সাহিদের সঙ্গে তার কাকা হাবিবুল্লা মণ্ডলের। একটি বেসরকারি ব্যঙ্কের টাকা গ্রুপের মাধ্যমে গ্রামের অনেকে লেনদেন করতো। সেই টাকা লেনদেন হতো হাবিবুল্লা মণ্ডলের মাধ্যমে। গত ২২ ডিসেম্বর লেনদেন শেষে হিসেব করতে গিয়ে দেখা যায় কুড়ি টাকা কম রয়েছে। হাবিবুল্লা তার ভাইপো সাহিদের দিকেই টাকা কম দেওয়ার অভিযোগে আঙুল তোলেন। কিন্তু তারা টাকা কম দেননি বলে এই অভিযোগের প্রতিবাদ করেন সাহিদের স্ত্রী আসমা বিবি। এই বিষয়টিকে কেন্দ্র করেই দু’পক্ষের মধ্যে গণ্ডগোল বেঁধে যায়। অভিযোগ এরপর হাবিবুল্লা ও তার অনুগামীরা সাহিদকে রাস্তায় ধরে বেধড়ক মারধর করে লাঠি ও বাঁশ দিয়ে। সাহিদকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর জখম হন তার স্ত্রী ও ভাই। ঘটনায় সবথেকে গুরুতর জখম হন সাহিদ আলি মণ্ডল। ওই দিন সন্ধ্যায় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে কলকাতার চিত্তরঞ্জন ন্যাশানাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন। সেখানে ও সাহিদের চিকিৎসা না হওয়ায় একাধিক হাসপাতাল ঘুরে অবশেষে নীলরতন সরকার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সাহিদকে। রবিবার রাতে সেখানেই মৃত্যু হয় তার।
সাহিদের মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছতেই ক্ষোভে ফেটে পরেন এলাকার মানুষজন। সোমবার মৃতদেহ সৎকারের পর অভিযুক্তদের বাড়িতে চড়াও হয়ে ভাঙচুর চালায় উত্তেজিত জনতা। মঙ্গলবার সকাল থেকেও এলাকার মানুষজন বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে। এ বিষয়ে বারুইপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হলেও পুলিশ এখনও কাউকেই গ্রেফতার বা আটক করতে পারেনি। তবে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বারুইপুর থানার পুলিশ।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

উলুবেড়িয়া উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থীর নাম ঘোষণা নিয়ে ধন্দ

কলকাতা: উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত ঘোষণা নিয়ে ধন্দ দেখা দিয়েছে৷ দলের ...