Home » সংবাদ শিরোনাম » কে ডি সিং আর ম্যাথু স্যামুয়েলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় সিবিআই

কে ডি সিং আর ম্যাথু স্যামুয়েলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় সিবিআই

কলকাতা: নারদ স্টিং অপরেশনের টাকার উৎস জানতে এবার তৃণমূলের আরেক সাংসদ কে ডি সিংকেও তলব করল সি বি আই । এই সাংসদকে এর আগে একবার জেরার জন্য ডাকা হলেও তিনি হাজিরা এড়িয়ে যান বলে অভিযোগ ৷ ফের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে তাকে কলকাতার নিজাম প্যালেসে জেরার জন্য তলব করল সি বি আই ৷ তবে তার আগে ম্যাথু স্যামুয়েলকে আরেক দফা জেরা করে বয়ান নিতে চাইছেন সি বি আইয়ের গোয়েন্দারা ৷ তাই, নোটিশ পাঠানো হল ম্যাথু স্যামুয়েলকেও । তারপর কে ডি সিং আর ম্যাথু স্যামুয়েলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় সি বি আই ।

গত মার্চ মাসে নারদ কর্ণধার ম্যাথু স্যামুয়েল সি বি আইয়ের কাছে দাবি করেন, স্টিং অপারেশনের জন্য ফান্ড জুগিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ তথা অ্যালকেমিস্টের চেয়ারম্যান কে ডি সিং । এই মর্মে বেশ কিছু তথ্যও সি বি আইয়ের হাতে তুলে দেন তিনি । সেসময় ম্যাথুর কাছে নারদকাণ্ড সংক্রান্ত বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর চেয়ে পাঠায় সি বি আই । তার জবাবও দেন ম্যাথু । ম্যাথু তদন্তকারীদের জানিয়েছেন, তহলকা সংস্থার কাজ করার সময় কে ডি সিং তহেলকার মাধ্যমে ৮৫ লক্ষ টাকা টাকা দিয়েছিলেন তাঁকে । সেই টাকাতেই তিনি স্টিং অপারেশন করেন । স্টিং অপারেশনের ফুটেজে থাকা তৃণমূলের নেতা-মন্ত্রী-সাংসদদের ‘ঘুষ’ বাবদ যে পরিমাণ টাকা দেওয়া হয়েছে, তাও রয়েছে ওই টাকার মধ্যে ৷ ম্যাথু আরও দাবি করেন, ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে এই স্টিং অপারেশন হলেও তা প্রকাশ করতে নিষেধ করেন তৃণমূল সাংসদ নিজেই । এরপর তহলকা ছেড়ে বেরিয়ে যান ম্যাথু । চালু করেন নারদ নিউজ ।
এই তথ্য হাতে আসার পরে সত্যতা যাচাইয়ের জন্য সি বি আই তহলকা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে ৷ এবিষয়ে তাদের বক্তব্য জানতে চাওয়া হয় ৷ সম্প্রতি তহলকা ই-মেল করে সি বি আই-কে জানিয়েছে, তারা ম্যাথুকে কোনও টাকা দেয়নি ৷ তাই গোয়েন্দারা এখন ধন্দে, তাহলে কার টাকায় এই স্টিং অপারেশন হল ? তাই ম্যাথুর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে ৷ সি বি আই ফের ডেকে পাঠাবে ম্যাথুকেও ৷ এজন্য ম্যাথুকে নতুন করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ৷ তার থেকে সবরকম তথ্য জানতে চাওয়া হবে ৷ ২০১৪ থেকে ১৫ সাল পর্যন্ত তার ব্যাঙ্ক লেনদেনের হিসেব চাওয়া হবে ৷ টাকার উৎসের বিষয়ে আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য তহলকার মালিক কে ডি সিংকেও জেরা করার প্রস্তুতিও নিচ্ছে সি বি আই ৷ এই সাংসদের সঙ্গে সরাসরি এই মামলার যোগাযোগ না থাকলেও আড়ালে থেকে তিনিই ম্যাথুকে দিয়ে স্টিং অপারেশন করিয়েছেন বলে শাসকদলের একাংশের অভিযোগ ৷ সেই কারনেই, তহলকা কর্তৃপক্ষেরও থেকেও তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের হিসেব চাওয়া হতে পারে ৷ প্রয়োজনে ফরেন্সিক অডিট করাও হতে পারে বলেও জানিয়েছেন সি বি আই আধিকারিকরা ৷

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

তিন তালাক বিরোধী বিল নিয়ে সরব মমতা বন্দোপাধ্যায়

আমোদপুর: নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাকযুদ্ধ অব্যাহত| বিমুদ্রাকরণকে হাতিয়ার করে এতদিন তুলোধনা ...