Home » উত্তর-পূর্ব ভারত » রামকৃষ্ণনগর সার্কলে এক লক্ষ আট হাজারের নাম এনআরসিতে, বাকি প্রায় দুই লক্ষ

রামকৃষ্ণনগর সার্কলে এক লক্ষ আট হাজারের নাম এনআরসিতে, বাকি প্রায় দুই লক্ষ

রামকৃষ্ণনগর: ইংরেজি নববর্ষের প্রথমদিনটি এনআরসি-র প্রথম খসড়ায় নাম রয়েছে কি না তা দেখতে হুমড়ি খেয়ে নাগরিকদের এনএসকে অভিমুখে ছুটতে হয়েছে। থার্টি ফাস্টের রাত ১২টায় নাগরিকপঞ্জির প্রথম তালিকা প্রকাশের সঙ্গে-সঙ্গে সাইবার সাইটগুলি জ্যাম হয়ে পড়ে। মোবাইল ইন্টারনেটে কেউ কেউ সোমবার সকাল পর্যন্ত জানতে পারলেও বেশিরভাগই ভিড় জমান এনআরসি সেবাকেন্দ্রে।

সেবাকেন্দ্রগুলিতে ছিল জোরদার নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ফলে রামকৃষ্ণনগর সার্কলে কোনও অশান্তির সৃষ্টি হয়নি। ঘোষিত প্রথম তালিকায় পুত্রের নাম তালিকায় ঠাই মিললেও বাবার নাম বাদ পড়েছে। শিক্ষিত সচেতনরা বিষয়টি বুঝে উঠলেও একটু অল্প শিক্ষিতদের মুখ ছিল ভার। কেননা পরিবারের দু-একজনের নাম থাকলেও বাকিদের নাম বাদ থেকে যায়। এজন্য সমস্যা পোহাতে হবে না তো, এমন প্রশ্ন এঁদের কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে।
এডিসি তথা নোডাল অফিসার রঞ্জিতকুমার লস্করের কাছে জানা গেছে, রামকৃষ্ণনগর সার্কলে মোট ৫৮ হাজার ১৫৮টি আবেদন জমা পড়েছিল। অর্থাৎ ৫৮,১৫৮ পরিবারের। আর সেই হিসাব অনুযায়ী প্রায় তিন লক্ষের আশপাশ জনসংখ্যা হবে বলে জানান তিনি। এর মধ্যে গতকাল মধ্যরাতে ঘোষিত প্রথম তালিকায় ১ লক্ষ ৮ হাজার ৮৯৭ জনের নাম প্রকাশ হয়েছে। তিনি বলেন, এখনও প্রায় ১ লাখ ৯০ হাজারের নাম প্রকাশের অপেক্ষায়। শতাংশের অনুপাতে রামকৃষ্ণনগর সার্কলে চল্লিশ শতাংশেরও কম রয়েছে বলে জানা গেছে। বাকি নামগুলি পর্যায়ক্রমে পরবর্তীতে ঘোষণা হবে বলে জানান নোডাল অফিসার লস্কর। এতে কোনও টেনশনের কারণ নেই, এই অভয়বাণী প্রশাসনিক আধিকারিকের।

রামকৃষ্ণনগর সার্কলে জমাকৃত ৫৮,১৫৮টি আবেদনপত্রের হিসাবে মোট জনসংখ্যা ঠিক কত রয়েছে তা অবশ্য সঠিক জানাতে পারেনি প্রশাসন। ফলে এখনও সংখ্যায় ঠিক কতজন বাকি রয়েছেন তা পরিষ্কার জানা যায়নি।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ত্ৰিপুরায় অমিত শাহর জনসমাবেশ সফল করার প্ৰস্তুতি বিজেপি-র

আগরতলা: আগামী ৭ জানুয়ারি ত্ৰিপুরার আমবাসা ও উদয়পুরে বিজেপি-র সৰ্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর নিৰ্বাচনী জনসমাবেশকে ...