অসমে গোমাংস বিক্রির অপরাধে মুসলমান বৃদ্ধকে নিগ্রহ, জোর করে খাওয়ানো হল শুয়োরের মাংস

এক অমানবিক ঘটনার কারণে সংবাদ শিরোনামে এলো অসম। রবিবার অসমের বিশ্বনাথ জেলায় গরুর মাংস বিক্রির অপরাধে এক মুসলমান বৃদ্ধকে রাস্তায় ফেলে মারল কয়েক জন যুবক। ওই বৃদ্ধের নাম সওকত আলি। ওই মুসলমান বৃদ্ধকে শুধু মারা হয়েছে তা নয়, তাঁকে এতটাই নৃশংসভাবে মারা হয়েছে যে তিনি প্রাণ ভিক্ষা চাইতে বাধ্য হয়েছেন। একটি ভিডিও সোশ্যাল  মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখানে এই দৃশ্যটি স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। ওই বৃদ্ধকে যুবকরা শুধুমাত্র মারধর করেই ক্ষান্ত থাকেনি, তাঁকে শুয়োরের মাংস খেতে বাধ্য করা হয়েছে বলে ওই যুবকদের বিরূদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় পাঁচজন যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, মোট  দুটি এফআইআরের ভিত্তিতে  তদন্ত চলছে। তার একটি দায়ের করেছেন শওকতের ভাই। সূত্র মারফত খবর,  ওই ভিডিও থেকেই অভিযুক্তদের সন্ধান শুরু করেছে পুলিশ। ভিডিওটিতে দেখা  যাচ্ছে  কয়েকজন লোক শওকতকে ঘিরে ধরেছে। তাঁকে তারা কয়েকটি প্রশ্নও জিজজ্ঞাসা করছে। জানতে চাইছে,  শওকত কি বাংলাদেশ থেকে  এসেছেন? তাদের আরও প্রশ্ন গো মাংস বিক্রির লাইসেন্স কি আছে  তাঁর কাছে? এনআরসিতে তাঁর নাম আছে কিনা তাও জানতে চেয়েছে ওই যুবকরা। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই ভিডিওটি বেশি না ছড়ানোর আর্জি করা হয়েছে।

 

 

Spread the love

2 comments on “অসমে গোমাংস বিক্রির অপরাধে মুসলমান বৃদ্ধকে নিগ্রহ, জোর করে খাওয়ানো হল শুয়োরের মাংস

  1. Bijay

    হিন্দু বাঙালিদের সঙ্গে আলী কুলি জিহাদি দেরকে মিশিয়ে ফেলিস না।

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *