বিজেপি করায় তাদের কর্মীর পা ভেঙে দিয়েছে তৃণমূল, জাঙ্গিপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দিল বিজেপি

সুজয় মুখোপাধ্যায়, হুগলি: জাঙ্গিপাড়ার কোতলপুর অঞ্চলের চাঁচুয়া গ্রামে বিজেপি কর্মীকে মারধোর এর অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনার সূত্রপাত আজ দুপুরে প্রশান্ত মজুমদার বিজেপির ফ্ল্যাগ বাধার কাজ করছিলেন। সেই সময় তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা তাকে ও তার ভাইপো সুজয় মজুমদারকে মারধর করে বলে অভিযোগ।

সুজয় ক্লাস নাইনের ছাত্র। সুজয় ও প্রশান্ত মজুমদারের পা ভেঙে যায়। এরপরে শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী দেবজিৎ সরকার ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও ধাক্কাধাক্কি ও ঠেলাঠেলি করে তৃণমূল কর্মীরা। এরপর ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় চাচুয়া গ্রামে। জাঙ্গিপাড়া থানার ওসি সমীর সরকার ঘটনাস্থলে গেলে বিজেপি কর্মীরা তাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। পরে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে।

প্রশান্তবাবুর অভিযোগ, চার-পাঁচজন মিলে ফ্ল্যাগ বাধার কাজ করছিলেন। সেই সময় তৃণমূলের শ’খানেক দুষ্কৃতী এসে তাদেরকে মারধর করে। মাটিতে ফেলে মেরে পা ভেঙে দেয়।

এ বিষয়ে বিজেপি প্রার্থী দেবজিৎ সরকার বলেন, আজ দুপুরে আমাদের এক বিজেপি কর্মী প্রশান্ত মজুমদার বিজেপি ফ্লাগ বাধার কাজ করছিলেন সেই সময় তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা লোহার রড, বাঁশ দিয়ে তাকে এবং তার ভাইপোকে মারধর করা হয়। তাদের দু’জনেরই পা ভেঙে যায়। দুষ্কৃতীরা তাদের শাসায় বিজেপি করলে জানে মেরে দেবো। এই ঘটনার সাথে যুক্ত দোষী ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করতে হবে না হলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে যাবো।

অপরদিকে তৃণমূলের জেলা কার্যকরী সভাপতি প্রবীর ঘোষালের বক্তব্য, এই ঘটনার সাথে তৃণমূলের কর্মীরা কোনওভাবেই যুক্ত নয়। বিজেপি আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ করছে।

বিজেপির পক্ষ থেকে জাঙ্গিপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *