বিমানবন্দরে সোনাকাণ্ডে রাজ্য সরকারকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট

বিমানবন্দরে সোনা পাচার কাণ্ডে শুক্রবার রাজ্য সরকারকে নোটিশ পাঠাল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। রাজীব কুমার মামলার শুনানির সময় সিবিআই-এর আইনজীবী বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সেসময় প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ বলেন, বিষয়টি খুব গুরুতর। তিনি বলেন, ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত কোনও একটি বিষয় নিয়ে কেড তাঁদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। এটা অত্যন্ত জরুরি বিষয়। যা সহজে এড়িয়ে যাওয়া যাবে না। তিনি বলেন, গোটা ঘটনায় তাঁর জানা নেই কার দাবি সঠিক বা ভুল।

সেসময় রাজীব কুমারের আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি বিষয়টিকে আড়াল করার চেষ্টা করেন। মনু সিংভি বলেন, এই মামলায় নোটিশ পাঠানোর প্রয়োজন নেই। কিন্তু সেই দাবিকে কার্যত গুরুত্ব না দিয়ে রাজ্য সরকারকে নোটিশ দিল শীর্ষ আদালত। গত রছ মার্চের ঘটনায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা নারুলা কাণ্ডে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-র বেঞ্চ এই নোটিশ পাঠায়।

১৬ মার্চ ভোর রাতে ব্যাঙ্কক থেকে থাই এয়ারওয়েজের বিমানে দমদম বিমানবন্দরে নামেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা নারুলা এবং তাঁর সঙ্গী মেনকা গম্ভীর।  অভিষেকের স্ত্রীর বিরুদ্ধে কর্তব্যরত কাসটমস অফিসারদের অভিযোগ ছিল, আগাম না জানিয়ে নির্ধারিত পরিমাণের তুলনায় বেশি সোনা নিয়ে আসছিলেন। কাসটমস অফিসাররা তাঁকে আটকানোর চেষ্টা করলে রাজ্য পুলিশের হস্তক্ষেপে তাঁকে ছাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সেই নিয়ে পুলিশের কাছে নির্দিষ্ট অভিযোগ জানান কাসটমস কর্তৃপক্ষ। যদিও পালটা হেনস্থার অভিযোগ নথিবদ্ধ করেছিলেন রুজিরা নারুলাও।

গত ২৯ মার্চ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টে তোলা হয় প্রথমবার। সম্প্রতি সারদা কাণ্ডে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার সংক্রা্ন একটি মামলা চলাকালীন সুপ্রিম কোর্টে বিষয়টি ডত্থাপন করেন সিবিআই-এর আইনজীবী। সে সময়ে সিবিআই আইনজীবী অভিযোগ করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গে ‘সাংবিধানিক একনায়কতন্ত্র’ চলছে। বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দৃষ্টি আকর্ষণ করায় নড়েচড়ে বসে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। তারপরই নোটিশ পাঠায় রাজ্য সরকারকে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *